Wednesday, April 10, 2019

এই নারীর এক পায়ের ওজন ১০০ কেজি মরণ ব্যাধি সবাই সাবধান থাকুন।

ফাইলেরিয়া বা গোদ রোগের কারণ, লক্ষণ ও চিকিৎসা

সিলেটের রেজিয়া বেগম নামের একটি মহিলার পা  অস্বাভাবিক ভাবে বৃদ্ধি পেয়ে মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। রেজিয়া বেগমের বয়স ৪০ বছর। এ্যালিফান্টিয়াসিস বা গোদ রোগ নামক বিরল রোগে আক্রান্ত হয়ে তার ডান পা প্রায় ১০০ কেজি ওজন হয়েছে। জানা যায় ১৮ বছর আগে তার দ্বিতীয় মেয়ের জন্মের পর থেকেই  তার এই রোগটি দেখা দেয়। কিন্তু ধীরে ধীরে এটি বিরাট আকার ধারণ করতে থাকে । তবে তিনি এখন কোন কাজই করতে পারেন না তাই সে  তার পরিবার ও আত্মীয়স্বজনের উপর নির্ভরশীল।

রেজিয়া বেগম বলেন, 'আমি অন্য কোন স্বাভাবিক মহিলার মতো ছিলাম কিন্তু এখন আমার দরিদ্র পরিবারের উপর আমি একটা বোঝা। যদিও ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার তত্ত্বাবধান করা হচ্ছে, তবুও দারিদ্রতার কষাঘাতে তার সুচিকিৎসা করা অনেকটাই অনিশ্চিত। কেননা তার সুচিকিৎসার জন্য থেরাপি,অস্ত্রোপচার এবং অতিরিক্ত পরীক্ষা প্রয়োজন হবে। তার জন্য প্রয়োজন অনেক টাকার। মেডিকেল ডাক্তারগণ বলছেন যে মশার কামড়ের ফলে শরীরে জীবাণু প্রবেশ করার  ফলে এ ধরণের রোগ হয়। তবে অন্য কোন কারণেও এই রোগটি হতে পারে।

বিশ্বব্যাপী প্রায় ১২০ মিলিয়ন মানুষ এ্যালফান্টিয়াসিস  রোগ দ্বারা প্রভাবিত করে। এটি লিম্ফ্যাটিক সিস্টেমে বাধা রোধের কারণে শরীরের একটি অঞ্চলের ব্যাপক বৃদ্ধি হতে থাকে। আসুন আমরা এই রোগ সম্পর্কে জেনে রাখি তাহলে আমরা আগে থেকেই সচেতন থাকতে পারব।

এ্যালিফান্টিয়াসিস রোগ বা ফাইলেরিয়াসিস এক প্রকার পরজীবীর মাধ্যমে ছড়ায়। এটি এক প্রকার সংক্রামক রোগ যা সূতার মতো একজাতের (ফাইলেরিওয়ডিয়া Filarioidea পরিবারভুক্ত নিমাটোড) গোলকৃমি দ্বারা এই রোগ সংঘটিত হয়।

ফাইলেরিয়া বা গোদ রোগের কারণ, লক্ষণ ও চিকিৎসা

ফাইলেরিয়া বা গোদ রোগের কারণ, লক্ষণ ও চিকিৎসাঃ 

এছাড়াও এক প্রকার উচেরেরিয়া ব্যানক্রফটি নামক জীবাণু দ্বারা  এই রোগের হয়ে থাকে। মূলত কিউলেক্স মশার কামড়ে এই জীবাণু মানুষের শরীরে প্রবেশ করে তবে অ্যানোফেলিস ও এডিস মশার কামড়ে ও এই পরজীবীর জীবাণু মানুষের শরীরে প্রবেশ করতে পারে।
লক্ষনঃ প্রথমে অল্প মাত্রার জর সেই সাথে লিম্ফ নালী বরাবর ব্যাথা এবং লাল হয়ে যাওয়া। কিছুদিন পরে আক্রান্ত অঙ্গ ফুলে যায় এবং এটা ক্রমান্বয়ে বাড়তে থাকে যা এক সময় বিশাল আকৃতি ধারণ করতে থাকে। সাধারণত পা, অন্ডকোষ, পেট, পিঠসহ অন্যান্য অঙ্গ ও এতে আক্রান্ত হতে পারে। মেয়েদের ক্ষেত্রে স্তনের চামড়া ফুলে পুরু হয়ে  যায় এবং চামড়া খসখসে হয়ে উঠে। তাই আপনাদের সবসময় মশার কামড় থেকে বিরত থাকবেন।
   

Rea es:
শেয়ার করুন

Author:

আমি একজন অতি সামান্য মানুষ। পেশায় একজন লেখক,ব্লগার এবং ইউটিউবার। লেখালেখি করতে খুব ভালো লাগে। আমার এই সামান্য প্রয়াসের মাধ্যমে মানুষের কিছু শেখাতে পারা ও বিনোদন দেওয়ার মাধ্যমে আনন্দ খুঁজে পায়।

0 coment rios: