আল্লাহ তায়ালা বলে নাকি কিছুই নেই।There is no God.

আল্লাহ তায়ালা বলে নাকি কিছুই নেই।  

আল্লাহ তায়ালা বলে নাকি কিছুই নেই। There is no god.

আল্লাহ তায়ালা বলে নাকি কিছুই নেই।There is no God. 

যুগে যুগে শয়তান মানুষ ছিল বর্তমানেও আছে। কিন্তু বাংলাদেশের মত বৃহত্তম ইসলামী রাষ্ট্রে এই সকল শয়তানদের প্ররোচনা ও প্রবঞ্চনা দিন দিন বেড়েই যাচ্ছে।  বর্তমানে অনেক ব্লগার আছেন যারা ইসলাম সম্পর্কে নানারকম কটূক্তি ও অপপ্রচার চালাচ্ছেন তাদের ওয়েবসাইটের মাধ্যমে। তারা আল্লাহ তায়ালাকে বিশ্বাস করে না।  আল্লাহ তায়ালাকে  বিশ্বাস করুক আর না করুক সেটি বড় কথা নয় কিন্তু আল্লাহ তায়ালাকে নিয়ে, ইসলাম ও মহানবীকে নিয়ে কটূক্তি ও অবমাননা করার তাদের কোন অধিকার নেই। কিন্তু বর্তমানে দেখা যাচ্ছে অনেক ব্লগ  বা ওয়েবসাইটে ইসলাম সম্পর্কে নানাবিধ অপপ্রচার চালানো হচ্ছে।

ইসলাম ও মহানবী (সঃ) কে নিয়ে যে সকল ব্লগে  অবমাননা করা হবে তাদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা করতে হবে। ইসলাম ও মহানবীকে ব্লগে অবমাননাকারী নাস্তিকদের শাস্তির দাবিতে ১০ টি ব্লগ ও ৮৫ নাস্তিক ব্লগারের তালিকা হস্তান্তর করা হয়েছে।

আল্লাহ তায়ালা, ইসলাম ও মহানবীকে অবমাননাকারীদের খুঁজে বের করার জন্য বাংলাদেশ সরকারের গঠিত কমিটির নিকট একটা তালিকা দেন মোহাম্মাদীয়া জামেয়া শরীফ এর উপদেষ্টা ইসলামী চিন্তাবিদ আল্লামা মোহাম্মাদ মাহবুব আলম আরিফ।
গত রোববার সচিবালয়ে কমিটির প্রধান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মাইনুদ্দিন খন্দকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় এই তালিকায় হস্তান্তর করা হয়। এই তালিকা গ্রহণ করেন  অতিরিক্ত সচিব মাইনুদ্দিন খন্দকার এবং তিনি বলেনঃ নাস্তিক ব্লগার যারা ইসলাম ও মহানবীকে নিয়ে যারা কটূক্তি ও অবমাননা করেছে তাদের বিরুদ্ধে আইনী প্রক্রিয়ার মাধ্যমে কঠিন শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এই বিষয়ে তদন্ত করার জন্য সাইবার ক্রাইম গঠন করা হয়েছে। এই বিষয়ে ইতোমধ্যে অনেক অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে, এগুলোকে নিয়ে পুনরায় অনুসন্ধান করে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মাইনুদ্দিন খন্দকার জানান, কমিটির কাছে ফেসবুক ও ব্লগে আপত্তিকর বিষয়ে অভিযোগ জানাতে  complainmoho@gmail.com ই- মেইলে অভিযোগ পাঠানোর কথা বলা হয়েছে। মোহাম্মাদীয়া জামেয়া শরীফ এর উপদেষ্টা ইসলামী চিন্তাবিদ আল্লামা মোহাম্মাদ মাহবুব আলম আরিফ বলেন নাস্তিক হওয়া কারো ব্যক্তিগত বিষয় তবে নাস্তিক হয়ে ইসলাম ও মহানবীকে নিয়ে কটূক্তি করা এবং ইসলাম সম্পর্কে অপপ্রচার চালানো জঘন্যতম অপরাধ। এই অপরাধ আমরা কখনই চলতে দিতে পারি না।  এটা আমাদের খুব তাড়াতাড়ি বন্ধ করতে হবে নয়তো মানুষ বিভ্রান্তির শিকার হবে। অবমানানাকারীদের শাস্তির আওতায় আনতে হবে তাদেরকে কঠিন থেকে কঠিনতর শাস্তি প্রদান করতে হবে।
মাহবুব আলম আরিফ বলেন , সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ব্লগ মাত্র ৪৮ টি। অথচ আমরা জানি ব্লগ পরিচালিত  হচ্ছে ৩৫০ থেকে ৪০০ টি । তবে এখন এর সঠিক সংখ্যা পাওয়া যায় নি। তিনি আরও বলেন, চীনসহ বিভিন্ন দেশে টুইটার বন্ধ করা হয়েছে। বাংলাদেশেও ইসলাম বিদ্বেষী ব্লগ বন্ধ করতে হবে। এই সকল বিষয়ে সরকারকে গুরুতর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।  মাহবুব আলম আরও বলেন অনলাইন মনিটরিং সেল গঠন করতে হবে। ইন্টারনেট গেটওয়ের মাধ্যমে এই সকল ব্লগ বন্ধ করে দিতে হবে। তাই তিনি সরকারকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য আহব্বান জানিয়েছেন। এই বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংসদে বলেছে ইসলাম ও মহানবীকে অবমাননাকারীদের বরদাস্ত করা হবে না। বাস্তবে কতটুকু সত্য হবে এটাই এখন দেখার বিষয়।

তবে আমাদের এই সকল বিষয়ের উপর সতর্ক হতে হবে এবং এই ধরনের পোস্ট পড়া থেকে বিরত থাকতে হবে। এদের  বিষয়ে আপনার কোন মন্তব্য থাকলে অবশ্যই কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে অনুগত করবেন। নিচের ইমেজ বা পিকচারে ক্লিক করুনঃ 

No comments

Powered by Blogger.