Saturday, September 7, 2019

বিদেশীদের মত ইংরেজি উচ্চারণ শেখার সহজ উপায়।

বিদেশীদের মত ইংরেজি উচ্চারণ শেখার সহজ উপায়ঃ

 বিদেশীদের মত ইংরেজি উচ্চারণ শেখার সহজ উপায়।,ইংরেজি উচ্চারণের সঠিক নিয়ম,আমেরিকান ও ব্রিটিশদের মধ্যে কিছু গুরুত্বপূর্ণ শব্দের পার্থক্য,ইংরেজি শব্দের উচ্চারণ বিধি - ইংরেজি বানান উচ্চারণ,ইংরেজী বানান ও উচ্চারণের সহজ নিয়ম ও কৌশল,ইংরেজি শব্দের সঠিক উচ্চারণ,ইংরেজি উচ্চারণের নিয়ম pdf download,ইংরেজি উচ্চারণ করার সহজ নিয়ম,ইংরেজি উচ্চারণ বই,ইংরেজি উচ্চারণ বিধি,ইংরেজি বর্ণের উচ্চারণ,ইংরেজি উচ্চারণ শেখার বই pdf,ইংরেজি বানান করার কৌশল

আমাদের দেশের ৯৫% মানুষ ইংরেজি উচ্চারণে ভুল করে। আমরা স্কুল,কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে যেভাবে ইংরেজি উচ্চারণ শিখে এসেছি তা প্রায় সম্পূর্ণ ভুল। যার ফলে বিদেশিরা যখন কথা বলে তখন আমরা কিছুই বুঝতে পারি না। কারণ তাদের একসেন্ট আর আমাদের একসেন্টের মধ্যে অনেক পার্থক্য রয়েছে। এখানে একসেন্ট বলতে উচ্চারণের কথা বলা হয়েছে। বাংলাদেশ,ভারত,নেপাল,ভুটান, পাকিস্তানসহ দক্ষিণ এশিয়ার সকল দেশগুলোর ইংরেজি বলার ধরণ একেবারেই দুর্বল। এমনকি আমাদের দেশের স্কুল,কলেজ শিক্ষকের ইংরেজি উচ্চারণ শুদ্ধই হয় না। অপরদিকে পাবলিক ভার্সিটির শিক্ষকদের ইংরেজি উচ্চারণে স্বয়ংসম্পূর্ণতা নেই।

আজকে আপনি যদি এই লেসন টি মনোযোগ দিয়ে পড়েন তাহলে ইংরেজি উচ্চারণের অনেকটা বিষয় জানতে পারবেন। আপনার মনে হবে আমরা এতদিন কোন শিক্ষায় শিক্ষিত হয়েছিলাম। কাজেই এই লেসন টি যদি আপনি একবার সম্পূর্ণ পড়েন তাহলে আজ থেকে আপনি ইউরোপিয়ানদের মতই কথা বলতে পারবেন এমনকি এখন থেকে আর ইংরেজি খবর বুঝতেও অসুবিধা হবে না। 


ইংরেজি উচ্চারণের সঠিক নিয়মঃ

  • C= c এর উচ্চারণ ক না হয়ে খ এর মত হবে। যেমনঃ  can=খ্যান, come=খাম
  • q= q এর উচ্চারণ ক না হয়ে খ এর মত হবে। যেমনঃ quite=খোয়াইঠ  question= খোয়েশ্চেন 
  • p= p এর উচ্চারণ প না হয়ে ফ এর মত হবে। যেমনঃ  pen=ফেন  people=ফিফুল
  • t= t এর উচ্চারণ ট না হয়ে ঠ এর মত হবে। যেমনঃ talk=ঠক   time=ঠাইম
  • f= f উচ্চারণের সময় দুই ঠোঁট একসাথে লাগানো যাবে না। 
  • v= v উচ্চারণের সময় দুই ঠোঁট একসাথে লাগানো যাবে না। 
  • th= th যুক্ত শব্দ উচ্চারণের সময় দুই দাঁতের মাঝখান থেকে জিহ্বা বের করতে হবে। যেমনঃthank,thought,thief,through,think,ইত্যাদি ইত্যাদি।

বিশেষ দ্রষ্টব্যঃ মনে রাখবেন ইংরেজি উচ্চারণের ক্ষেত্রে ক,ট এবং প এই ধরণের উচ্চারণ করা হয় না। উদাহরণস্বরূপ আপনি কোন ইংরেজি ভাষার মানুষের যদি বলতে বলেন "কালা" সে বলবে "খালা"। "টাকা" বললে সে বলবে "ঠাকা"। আবার "পুত্র" বললে সে বলবে "ফুত্র"।

আমেরিকান ও ব্রিটিশদের মধ্যে কিছু গুরুত্বপূর্ণ শব্দের পার্থক্যঃ

আমেরিকা                                                               
A=  এ বা এই যেমনঃ   Bath= বেইথ                                   
war= ওয়ার                                                             
I am= আই এম                                           
often= অফটেন                                           
color= খলার                                               
couple of= অনেকগুলি  বোঝাতে  এই শব্দ টি ব্যবহার করে আমেরিকানরা

  ব্রিটিশ    
A= আ উচ্চারণ করে   যেমনঃ Bath=বাথ
War= ওয়া শেষের  r কে উচ্চারণ করে না 
I am= আই আম
often= অফেন
colour=খালার                 
couple of= দুইটাকে বোঝায়

দৈনন্দিন জীবনে প্রয়োজনীয় ১০০ টি গুরুত্বপূর্ণ ইংরেজি বাক্য জানতে ক্লিক করুন


Rea es:
শেয়ার করুন

Author:

আমি একজন অতি সামান্য মানুষ। পেশায় একজন লেখক,ব্লগার এবং ইউটিউবার। লেখালেখি করতে খুব ভালো লাগে। আমার এই সামান্য প্রয়াসের মাধ্যমে মানুষের কিছু শেখাতে পারা ও বিনোদন দেওয়ার মাধ্যমে আনন্দ খুঁজে পায়।

0 coment rios: