শুক্রবার, ২০ এপ্রিল, ২০১৮

মৃত্যুর দরজা যেখানে গেলে মৃত্যু অবধারিত।

মৃত্যুর দরজা-http://www.topbanglapages.com/
 প্রাচীন গ্রিসে একটি রহস্যজনক নিদর্শন রয়েছে। সেই নিদর্শন বা জায়গার কথা বললে আপনার চোখ কপালে উঠবে। তবে তার নিকটে গেলেই বিপদ। মৃত্যুর অন্ধকারে টেনে নিয়ে যায় মানুষকে। বহু বছর ধরে তাই এই জায়গার ধারে-কাছে যায় না কেউ। অবশেষে সেই রহস্যজনক ঘটনা উদঘাটন করা সম্ভব হয়েছে। 

‘হেডিস গেট’ নামে পরিচিত এই জায়গা। বর্তমানে এটি তুরস্কের ওয়েস্টার্ন ডেনিজিল প্রদেশে অবস্থিত। জানা যায়, এটির ধারে-কাছে যে কোনও মানুষ বা পশু গেলেই তার মৃত্যু অবধারিত। গবেষণা করে বিজ্ঞানীরা দেখেছেন, এটা কোন রুপকথার গল্পকথা নয়। এটাই বাস্তবে সত্যি ঘটনা।

সম্প্রতি প্রত্নতত্ত্বের উপর লেখা একটি জার্নালে বিজ্ঞানীরা বলছেন, ওই অঞ্চলে প্রচুর পরিমাণে  কার্বন-ডাই-অক্সাইড নির্গত হয়। আজও পর্যন্ত একইভাবেই বেরিয়ে আসছে বিষাক্ত গ্যাস। আর তাই সেখানে গেলেই মৃত্যু অনিবার্য। তবে সূর্য কোনদিকে উঠছে আর বাতাস কোনদিকে বইছে, সেটার উপর নির্ভর করে  কার্বন-ডাই-অক্সাইড নির্গত হয়। রাতে এত বেশি পরিমাণ গ্যাস বেরোয় যে, এক মিনিটের মধ্যে মানুষের মৃত্যু হতে পারে। প্রাচীন গল্পে শোনা যায়, এখানে অনেক মানুষ, ভেড়া, পাখির মৃত্যু হয়েছে।

বর্তমানে এই জায়গায় সতর্কবার্তা প্রদান করা হয়েছে। যাতে করে সাধারন মানুষ মনের অজান্তে সেখানে না যেতে পারে। কেননা পিস্তলের গুলি মিস হলেও এখানে যাওয়ার সাথে সাথে মৃত্যু নিশ্চিত। এখানে কার্বন- ডাই- অক্সাইডের পরিমাণ এত বেশি যে মুহূর্তের মধ্যেই যে কোন প্রাণী মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। তবে এর আগে অনেক মানুষের প্রাণহানি ঘটেছে। বর্তমানে মানুষ ভুল করেও এর আশেপাশে বা ধারের কাছে যায় না। এ জায়গাটা কিছুটা হলেও জাহান্নামের নমুনা।       

বিস্তারিত জানতে নিচের ভিডিও টি দেখুনঃ

               

শেয়ার করুন

Author:

আমি একজন অতি সামান্য মানুষ। পেশায় একজন লেখক,ব্লগার এবং ইউটিউবার। লেখালেখি করতে খুব ভালো লাগে। আমার এই সামান্য প্রয়াসের মাধ্যমে মানুষের কিছু শেখাতে পারা ও বিনোদন দেওয়ার মাধ্যমে আনন্দ খুঁজে পায়।

0 coment rios: