বুধবার, ১৬ মে, ২০১৮

৯বছরের কিশোরকে ভাগিয়ে বিয়ে করল ৪২ বছরের এক নারী।


`এবার ৯ বছরের কিশোরকে বিশাল আয়োজনের মধ্যে দিয়ে বিয়ে করলেন ৪২ বছরের এক ভদ্র মহিলা। আমরা হয়তবা এমন কিছু খবর গুজব হিসেবে জানতে পারি । কিন্তু বাস্তবে এমনটা ঘটেছে দক্ষিন আফ্রিকার একটি শহরে। তাও আবার ধুমধাম করে এই বিয়েটা সম্পন্ন করেছেন ঐ ভদ্র মহিলা। জানা যায় ঐ মহিলা কিশোরকে ভীষণ পছন্দ করেন। তারপর তিনি ঐ  কিশোরকে বিয়ের প্রস্তাব দেন । বিয়ের প্রস্তাবে  কিশোর রাজি হয়ে যায়। তাছাড়াও এই নারী ধনী ও সম্পদশালী। যার কারনে তিনি এমনটা সিদ্ধান্ত নিতে দ্বিধাবোধ করেনি। তিনি বিয়ের আয়োজন করেন এমনকি গায়ে হলুদের পিড়িতে দুজনই বেশ রঙ মাখামাখি করেছেন। গায়ে হলুদে অনেক মানুষের সমাগন ঘটেছিল।

৯বছরের কিশোরকে ভাগিয়ে বিয়ে করল ৪২ বছরের এক নারী
older woman married younger boy-http://www.topbanglapages.com/
এই ভদ্র মহিলা শহরের গণ্যমান্য ব্যক্তিকে নিমন্ত্রণ করেন। হাজার হাজার মানুষের সমাগণের মধ্যে দিয়েই বিয়ের কাজটা সম্পন্ন করেন। বিয়ের আনন্দে ঐ শহরে চলছে ব্যাপক উচ্ছ্বাস। বিয়ের পরে তারা বিভিন্ন রেস্তোরাঁয় একসাথে খাওয়ার জন্য ছুটে যাচ্ছেন। এমনকি তারা রাস্তার মাঝখানে একে অপরের হাত ধরে হেটে বেড়াচ্ছেন।
তারা সবার সামনে প্রকাশ্যে একে অপরের গালে চুমু খাচ্ছে। কেউ কেউ মা ছেলে মনে করে বিষয়টা এড়িয়ে যাচ্ছেন। এছাড়াও তারা দেশের বিভিন্ন জায়গায় হানিমুনের উদ্দেশ্যে ছুটে যাচ্ছেন। এই ঘটনাটি ঐ এলাকার মধ্যে তোলপাড় সৃষ্টি করেছে। ঝাঁকে ঝাঁকে লাখে লাখে তাদেরকে দেখতে ছুটে আসছে বিভিন্ন দূরদূরান্তের মানুষ। তবে তারা মানুষের এই সমাগণ দেখে দুজনই খুব উচ্ছ্বাসিত। সাংবাদিকরা ঐ ভদ্রমহিলার কাছে প্রশ্ন করেন আপনাদের বিবাহিত জীবন কেমন কাটছে। জবাবে তিনি বলেন অল ইজ গ্রেট। তিনি আরও বলেন আমি আগের তুলনায় অনেক সুখি অনুভব করছি। কিশোরটির কাছে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন আমি কল্পনায় করতে পারছি না আমার জীবনে কী ঘটে গেল। তবে আমি খুব আনন্দ উপভোগ করছি।



শেয়ার করুন

Author:

আমি একজন অতি সামান্য মানুষ। পেশায় একজন লেখক,ব্লগার এবং ইউটিউবার। লেখালেখি করতে খুব ভালো লাগে। আমার এই সামান্য প্রয়াসের মাধ্যমে মানুষের কিছু শেখাতে পারা ও বিনোদন দেওয়ার মাধ্যমে আনন্দ খুঁজে পায়।

0 coment rios: