জনসংখ্যায় বাংলাদেশের শীর্ষ ১০ শহর।

জনসংখ্যায় বাংলাদেশের শীর্ষ ১০ শহর।

হ্যালো বন্ধুরা আমি আজকে আলোচনা করবো জনসংখ্যায় বাংলাদেশের শীর্ষ ১০ শহর। আজকের এই আলোচনায় উঠে আসবে জনসংখ্যায় বাংলাদেশের শীর্ষ ১০ শহরের কথা। আপনারা জনসংখ্যাকে আয়তনের সাথে গুলিয়ে ফেলবেন না। কারণ কোন কোন জেলার আয়তন বেশি হতে পারে কিন্তু জনসংখ্যার দিক দিয়ে তা কম। কাজেই আজকের টপিক হচ্ছে জনসংখ্যায় বাংলাদেশের শীর্ষে থাকা ১০ টি শহরের কথা। এই টপিকটি গুগল, ওয়িকিপিডিয়া,বাংলাদেশ গভমেন্ট সাইট ও বিভিন্ন সোর্স থেকে সম্পূর্ণ নির্ভুলভাবে উপাস্থাপন করা হয়েছে।  

জনসংখ্যায় বাংলাদেশের শীর্ষ ১০ শহর। 

  1. ঢাকা জেলা
  2. চট্টগ্রাম জেলা
  3. কুমিল্লা জেলা
  4. ময়মনসিংহ জেলা
  5. সিলেট জেলা
  6. নারায়ণগঞ্জ জেলা
  7. রংপুর জেলা
  8. রাজশাহী জেলা
  9. বরিশাল জেলা
  10. খুলনা জেলা

১। ঢাকা জেলাঃ 

ঢাকা দক্ষিণ এশিয়ার রাষ্ট্র বাংলাদেশের রাজধানী ও বৃহত্তম শহর। প্রশাসনিকভাবে এটি দেশটির ঢাকা বিভাগের প্রধান শহর। ভৌগোলিকভাবে এটি বাংলাদেশের মধ্যভাগে বুড়িগঙ্গা নদীর উত্তর তীরে একটি সমতল এলাকাতে অবস্থিত। ঢাকা একটি অতিমহানগরী বা মেগাসিটি নামে পরিচিত। ঢাকা মহানগরী ১৬৮৩.২৭ বর্গকিলোমিটার আয়তনের জনসংখ্যা প্রায় ১ কোটি ৫০ লক্ষ। জনসংখ্যার বিচারে এটি দক্ষিণ এশিয়ার চতুর্থ বৃহত্তম শহর (দিল্লি, করাচি ও মুম্বইয়ের পরেই) এবং সমগ্র বিশ্বের নবম বৃহত্তম শহর। জনঘনত্বের বিচারে ঢাকা বিশ্বের সবচেয়ে ঘনবসতিপূর্ণ মহানগরী।

২। চট্টগ্রাম জেলাঃ  

চট্টগ্রাম ঐতিহাসিক নাম পোর্টো গ্র্যান্ডে এবং ইসলামাবাদ।  চট্টগ্রাম বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর। বন্দরনগরী নামে পরিচিত শহর, দেশের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলের চট্টগ্রাম জেলায় অবস্থিত। বাণিজ্যিক রাজধানী হিসেবে পরিচিত পাহাড়, সমুদ্রে এবং উপত্যকায় ঘেরা চট্টগ্রাম শহর প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের জন্যে প্রাচ্যের রাণী হিসেবে বিখ্যাত। ঢাকার পর বাংলাদেশের সবচেয়ে গুরত্বপূর্ণ শহর হচ্ছে চট্টগ্রাম। এখানে দেশের সর্ববৃহৎ বন্দর ছাড়াও বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এটি এশিয়ায় ৭ম এবং বিশ্বের ১০ম দ্রুততম ক্রমবর্ধমান শহর। ৫২৮৩ বর্গকিলোমিটার আয়তনের এই শহরে  ৭৯ লক্ষ ১৩ হাজার ৩ শত ৬৫ জনের বসবাস রয়েছে। 

৩।  কুমিল্লা জেলাঃ 

কুমিল্লা বাংলাদেশের দক্ষিণ পূর্ব প্রান্তে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে অবস্থিত একটি মহানগর। এটি ঢাকা, চট্টগ্রাম ও খুলনা এর পর বাংলাদেশের চতুর্থ বৃহত্তম শহর।এটির মেট্রোপলিটন এলাকার আয়তন ৩০৮৭.৩৩ বর্গকিলোমিটার এবং জনসংখ্যা ৫৬ লক্ষ ০২ হাজার ৬ শত ২৫ জন। এটি চট্টগ্রাম বিভাগে অবস্থিত কুমিল্লা জেলার প্রশাসনিক কেন্দ্রবিন্দু।

৪। ময়মনসিংহ জেলাঃ  

ময়মনসিংহ বাংলাদেশের সপ্তম বৃহত্তম শহর। বাংলাদেশের প্রধান শহরগুলোর মধ্যে এটি অন্যতম। এটি ময়মনসিংহ জেলার প্রায় কেন্দ্রভাগে পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে অবস্থিত। নদীর তীর জুড়ে থাকা শহর-রক্ষাকারী বাঁধের বিস্তীর্ণ এলাকা নিয়ে নিয়ে গড়ে উঠেছে ময়মনসিংহ পার্ক যা শহরবাসীর মূল বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে চিহ্নিত। বর্তমানে পার্কের অনেক দৃশ্যমান উন্নয়ন করা হয়েছে। ৪৩৬৩.৪৮ বর্গকিলোমিটার আয়তনের এই শহরে  ৫৩ লক্ষ ৩০ হাজার ২ শত ৭২ জনের বসবাস রয়েছে।


৫। সিলেট জেলাঃ

সিলেট উত্তর-পূর্ব বাংলাদেশের একটি প্রধান শহর, একই সাথে এই শহরটি সিলেট বিভাগের বিভাগীয় শহর। এটি সিলেট জেলার অন্তর্গত। সিলেট সিটি কর্পোরেশনের আওতাধীন এলাকাই মূলত সিলেট শহর হিসেবে পরিচিত। সিলেট ২০০৯ সালের মার্চ মাসে একটি মেট্রোপলিটন শহরের মর্যাদা লাভ করে। ৩৪৫২ বর্গকিলোমিটার আয়তনের এই শহরে ৩৫ লক্ষ ৬৭ হাজার ১ শত ৩৮ জনের বসবাস রয়েছে।

০৬। নারায়ণগঞ্জ জেলাঃ   

নারায়ণগঞ্জ জেলা বাংলাদেশের মধ্যাঞ্চলের ঢাকা বিভাগের একটি জেলা। নারায়ণগঞ্জ শহরে এ জেলার প্রশাসনিক সদরদপ্তর অবস্থিত। অত্যন্ত প্রাচীন এবং প্রসিদ্ধ সোনারগাঁও এ জেলার অন্তর্গত। নারায়ণগঞ্জ সোনালী আশঁ পাটের জন্য প্রাচ্যের ড্যান্ডি নামে পরিচিত। শীতলক্ষ্যা নদীর পাড়ে অবস্থিত নারায়ণগঞ্জ নদীবন্দর একটি বিখ্যাত নদী বন্দর। ৬৮৩.১৪ বর্গকিলোমিটার আয়তনের ২০১৫ সালের তথ্য অনুযায়ী জেলার জনসংখ্যা হল ৩০ লক্ষ ৭৪ হাজার ০৭৭ জন মানুষের বসবাস রয়েছে।

৭। রংপুর জেলাঃ   

রংপুর বাংলাদেশের রংপুর বিভাগের অন্যতম প্রধান শহর এবং ১৮৬৯ সালে প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশের প্রাচীনতম পৌর কর্পোরেশনের একটি। রংপুর শহর ১৭৬৯ সালের ১৬ ডিসেম্বর বিভাগীয় সদর দপ্তর হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করে। ১৮৯০ সালে তৎকালীন পৌর কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান ডিমলার জমিদার বাড়ির রাজা জানকীবল্লভ সেন রংপুর শহরে জলাবদ্ধতা নিরসনে তার মা চৌধুরানী শ্যামাসুন্দরী দেবী'র নামে যে খালটি পুনঃখনন করেন তাই আজকের শ্যামাসুন্দরী খাল নামে পরিচিত এবং তার দানকৃত বাগান বাড়ির জমিতে ১৮৯২ খ্রিষ্টাব্দে আজকের পৌরসভা ভবনটি গড়ে ওঠে। ২৪০০.৫৬ বর্গকিলোমিটার আয়তনের এই শহরে ২৯ লক্ষ ৯৬ হাজার ৩ শত ৩৬ জন মানুষের বসবাস রয়েছে।


৮। রাজশাহী জেলাঃ 

রাজশাহী বাংলাদেশের অন্যতম প্রাচীন ও ঐত্যিহবাহী মেট্রোপলিটন শহর। এটি উত্তরবঙ্গের সবথেকে বড় শহর। রাজশাহী শহর পদ্মা নদীর তীরে অবস্থিত। যা রাজশাহী বিভাগের বিভাগীয় শহর। রাজশাহী শহরের নিকটে প্রাচীন বাংলার বেশ কয়েকটি রাজধানী শহর অবস্থিত। এদের মাঝে লক্ষণৌতি বা লক্ষনাবতি, মহাস্থানগড় ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য। রাজশাহী তার আকর্ষণীয় রেশমীবস্ত্র, আম, লিচু এবং মিষ্টান্নসামগ্রীর জন্য প্রসিদ্ধ। রাজশাহী বাংলাদেশের শহরগুলির মধ্যে সবচেয়ে পরিচ্ছন্ন এবং সবুজ।  ২৪০৭.০১ বর্গকিলোমিটার আয়তনের এই শহরে ২৩ লক্ষ ৭৭ হাজার ৩ শত ১৪ জনের বসবাস রয়েছে। 

৯। বরিশাল জেলাঃ 

বরিশাল বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলের একটি শহর। প্রাচ্যের ভেনিস নামে পরিচিত এ শহরটি বরিশাল জেলায় অবস্থিত ও এটি বরিশাল বিভাগের সদর দপ্তর। এটি বাংলাদেশ-এর একটি অন্যতম সুন্দর শহর। কীর্তনখোলা নদীর তীরে অবস্থিত এই শহরের পুরাতন নাম চন্দ্রদ্বীপ। দেশের খাদ্যশস্য উৎপাদনের একটি মূল উৎস এই বৃহত্তর বরিশাল। বরিশালে একটি নদীবন্দর রয়েছে যেটি দেশের অন্যতম প্রাচীন, দ্বিতীয় বৃহত্তম ও গুরুত্বপূর্ণ একটি নদীবন্দর। ২৭৯১ বর্গকিলোমিটার আয়তনের এই শহরে  ২৩ লক্ষ ২৪ হাজার ৩ শত ১০ জনের বসবাস রয়েছে।

১০। খুলনা জেলাঃ

খুলনা ঢাকা এবং চট্টগ্রামের পরে বাংলাদেশের তৃতীয় বৃহত্তম শহর। খুলনা জেলা এবং খুলনা বিভাগের সদর দপ্তর এই খুলনা শহরে অবস্থিত। খুলনা বাংলাদেশের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলে রূপসা এবং ভৈরব নদীর তীরে অবস্থিত। বাংলাদেশের প্রাচীনতম নদী বন্দরগুলোর মধ্যে খুলনা অন্যতম। খুলনা বাংলাদেশের অন্যতম শিল্প ও বাণিজ্যিক এলাকা হওয়ায় খুলনাকে শিল্প নগরী হিসেবে ডাকা হয়। খুলনা শহর থেকে ৪৮ কি.মি. দূরে বাংলাদেশের দ্বিতীয় সমুদ্র বন্দর মংলা সমুদ্র বন্দর অবস্থিত। পৃথিবী বিখ্যাত উপকূলীয় বন সুন্দরবন খুলনা জেলার দক্ষিণাংশে অবস্থিত। খুলনাকে সুন্দরবনের প্রবেশদ্বার বলা হয়। ৪৩৯৪.৪৫ বর্গকিলোমিটার আয়তনের এই শহরে ২৩  লক্ষ ১৮ হাজার ৫ শত ২৭ জন মানুষের বসবাস রয়েছে।

১১। গাজীপুর জেলাঃ

অতিরিক্ত হিসেবে গাজীপুর জেলাকে না উল্লেখ করলেই নয়। তাই বোনাস হিসেবে গাজীপুর জেলা নিয়ে আলোচনা করতে বাধ্য হলাম। গাজীপুর জেলা একটি পুরাতন শহর। এটি ঢাকার সন্নিকটে অবস্থিত। অনেকগুলি ভারী এবং মাঝারি শিল্প এলাকা নিয়ে এই শহর গড়ে উঠেছে। টঙ্গীর অবস্থান এই শহরের মধ্যে। এছাড়াও এখানে ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং ইসলামিক ইউনিভার্সিটি অব টেকনোলজি রয়েছে। ১৭৭০.৫৮ বর্গকিলোমিটার আয়তনের এই শহরে ২১ লক্ষ ৪৩ হাজার ৪ শত ১৩ জনের বসবাস রয়েছে।

নিচের ভিডিও টি দেখুন আশা করি ভাল লাগবে। জনসংখ্যায় বাংলাদেশের শীর্ষ ১০ শহর। 

No comments

Powered by Blogger.