বিশ্বের শীর্ষ ৮ টি সুন্দর গ্রাম এর মধ্যে সিলেটের পানতুমাই।

বিশ্বের শীর্ষ ৮ টি সুন্দর গ্রাম এর মধ্যে সিলেটের পানতুমাই।

গ্রাম শব্দটি বাংলাদেশের একটি অতি পরিচিত নাম। কেননা বাংলাদেশ একটি গ্রাম প্রধান রাষ্ট্র। সবুজ-শ্যামল আর গাছপালায় ভরা আমাদের গ্রামের পরিবেশ। আমাদের বাংলাদেশের গ্রামে রয়েছে দিগন্ত জোড়া মাঠ, ধানের  আউলা বাতাস। বাঙালির মনোজগতে গ্রামের এই চিত্র শুধু কল্পনাই নয় বাস্তবে বাংলাদেশের প্রতিটি আনাচে কানাচে গ্রামের এই চিত্র ফুটে উঠেছে।

শুধু যে কেবলমাত্র আমাদের বাংলাদেশে গ্রামের পরিবেশ এত সুন্দর তা কিন্তু নয়। পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই রয়েছে অপরূপ সুন্দর সব গ্রামের দৃশ্য। ছবির মতো সাজানো গোছানো সেসব গ্রামের চিত্র দেখলে পলকেই ছুটে যেতে ইচ্ছে করবে হয়তো সেখানে।

চলুন আজকে জেনে নেওয়া যাক বিশ্বের শীর্ষ ৮ টি সুন্দর গ্রামের কথা।

১। পানতুমাই (সিলেট, বাংলাদেশ)

বাংলাদেশের পশ্চিমাঞ্চলীয় জনপদ সিলেটের জেলার জাফলং ইউনিয়নে রয়েছে এমন একটি সুন্দর গ্রাম যা পলকেই যে কোনও মানুষকে নিয়ে যেতে পারে স্বপ্নের এক জগতে। সেই গ্রামের নাম হলো পানতুমাই। পানতুমাই নামটি স্থানীয় জনপদ খাসিয়া সম্প্রদায়ের মানুষের দেওয়া।

এই গ্রামে রয়েছে পাহাড়ি ঝরনা, সবুজঘেরা লেক। তেমনি দূরে তাকালেই দেখা মিলবে কুয়াশা ঢাকা সবুজ মেঘালয়ের পাহাড়। বিশেষ করে বর্ষার দিনে এই গ্রামের সৌন্দর্য বহুগুণে বৃদ্ধি পায়। এই গ্রাম থেকে কিছুদূর হাঁটলেই পাওয়া যাবে বিছানাকান্দি নামে এক মনোরম সুন্দর এক পাহাড়ি প্রপাত। যার স্বচ্ছ টলটলে জল মুহূর্তে চাঙ্গা করে দিতে সক্ষম অতি  নিঃসঙ্গ মানুষটির মনও। এছাড়া এখানে আরও রয়েছে বড়হিল ঝর্না, ইসলামাবাদ নামে সবুজ এক পাহাড়ি ভূমি।
সেজন্যই পানতুমাই কে বলা হয় বাংলাদেশের সবচেয়ে সুন্দর ও অপূর্ব এক নিরালা গ্রাম। ঢাকা থেকে বাস বা ট্রেনে সিলেট নেমে গাড়ি ভাড়া নিয়ে বা বাস অথবা সিএনজি অটোরিক্সায় যেতে হবে জাফলংয়ের গোয়াইনঘাট। তারপর সেখান থেকে আবার সিএনজি অটোরিক্সা বা রিক্সায় করে খুব সহজেই পৌঁছে যাওয়া যায় পানতুমাই গ্রামে।

২। বুরানো (ভেনিস, ইতালি)

জলের শহর বলে খ্যাত ইতালির ভেনিস শহরের সৌন্দর্য এমনিতেই জগত বিখ্যাত। তার ওপর এই শহরে রয়েছে এমন এক গ্রাম যেখানে গেলে রঙে রঙে রঙিন হয়ে ওঠে মন। ভেনিসের অন্যান্য জায়গার মতো এই গ্রামের মাঝ দিয়েও বয়ে গেছে একটি খাল। কিন্তু এই খালের দুই পাড়ে নানান রঙে রঙ করা বাড়ি-ঘর, দরজা-জানলা,আর অপূর্ব প্রাকৃতিক দৃশ্য দেখলে মনে হবে হঠাৎ করেই যেন চলে এসেছি এক রূপকথার দেশে। এমনকি এই গ্রামের খালে চলা বড় নৌকা গুলোও বিভিন্ন রঙের যেগুলো দেখলে মনে হবে অপূর্ব সব কারুকার্য।

অনেকে এই গ্রামকে ভেনিসের সবচেয়ে রোমান্টিক জায়গা হিসেবেও বর্ণনা করেছেন। ইউরোপের নতুন বিবাহিত দম্পতিরা প্রায়ই এখানে আসেন তাদের হানিমুন কে রঙিন করে তোলার জন্য।

৩। গারমিশ্চ-পারতেনকিরচেন, ব্যাভারিয়া, জার্মানিঃ 

জার্মানির ব্যাভারিয়াতে অবস্থিত নয়নাভিরাম গারমিশ্চ-পারতেনকিরচেন গ্রামটি অবস্থিত জুগসপিৎজ পর্বতের চুড়ায়। যা জার্মানির সর্বোচ্চ শৃঙ্গ নাম পরিচিত। মনোরম সব দৃশ্য দেখা যায় এই নিরালা প্রত্যন্ত গ্রামটিতে গেলে। অল্প কিছু সংখ্যক মানুষের বসবাস রয়েছে সেখানে। বাসিন্দাদের অধিকাংশই ভেড়ার খামারের মালিক আর কাঠুরিয়া।
 
ওই গ্রামে গেলে যেদিকে চোখ যায় চারদিকে কেবল দেখা যায় সবুজে ঘেরা দিগন্ত মাঠ। জুগসপিৎজ পর্বতের চুড়ার সৌন্দর্য্য দেখলে অনেকেরই মনে হতে পারে এই বুঝি সেই ভূস্বর্গ তে পা রাখলাম।

৪। রিইনা (নরওয়ে)

রিইনাকে বলা হয় ইউরোপের সবচেয়ে সুন্দর গ্রামগুলোর মধ্যে অন্যতম। এটি অবস্থিত নরওয়ের মনোরম সৌন্দর্য আর্কটিক চ্যানেলের মসকেনিসোয়া দ্বীপে। সুউচ্চ পাথুরে পাহাড় আর লেকঘেরা এই গ্রামটিতে বাস মাত্র ৩৫০ জন মানুষের। কিন্তু তারপরও ইউরোপের ভ্রমণপিয়াসী মানুষেরা ঠিকই খুঁজে নেন রিইনার ঠিকানা।

5. ওইয়া (গ্রিস)

গ্রিসের অপরূপ দ্বীপ সান্তোরিনির মনোরম এক গ্রাম ওইয়া। পাহাড়ের খাঁজে খাঁজে বানানো দুধ সাদা সব বাড়ি দেখলে পলকেই আপনার মনটা ভরে যাবে। বলা হয় যে, কেউ যদি কিছুদিন শান্ত ও নির্মল জীবন উপভোগ করতে চান তাকে যেতে হবে অবশ্যই ওইয়া গ্রামে। সেখানের প্রায় প্রতিটি বাড়ির বারান্দা বা ছাদে উঠলেই দেখা যায় সমুদ্রে অসাধারণ সুর্যাস্তের দৃশ্য। শুধু বাড়িই নয়, পাহাড়ের খাঁজে খাঁজে সবুজ ঘাসের আস্তরন আর বুনো ফুলের ঘ্রাণ মন ভরে দিতে বাধ্য। আর পর্যটকদের জন্য ওইয়ার আরেকটি আকর্ষণ হলো সমুদ্রস্নান।

৬। কোলমার (ফ্রান্স)

ফ্রান্সের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ আলসাসের কোলমার গ্রামটিকে দেখলে যে কেউ বলতে বাধ্য হবে এ যেন এক রূপকথার নগরী। কারণ একটি গ্রাম এত সুন্দরভাবে সাজানো গোছানো ও পরিপাটি করে রাখা যায় তার প্রমাণ কোলমার গ্রামটি। পুরো গ্রামটিই জুড়ে রয়েছে বাগানের সমারোহ। এখানে অক্সিজেনের কোনরকম ঘাটতি নেই।  যে দিকে তাকানো যায়, বাস্তা, বাড়ি, ঘর, ফুটপাত সব জায়গাতেই সারা বছর পাওয়া যায় নানা রঙের ফল সেই সাথে ফুটে থাকে নানান রঙের ফুল। আর ফুল দিয়ে সাজানো নৌকায় কোলমারের লেকে ভ্রমণ করলে দেখতে পাবেন রূপকথার নগরীর মতো চকলেটের রঙে রাঙানো বাড়ি ঘর আর সবু‌‌‌জের সমারোহ। 

৭। গিথরন, (নেদারল্যান্ডস)

নেদারল্যান্ডসের ওভেরিজসেল প্রদেশের স্টিনউইজকারল্যান্ডস শহরের কাছে অবস্থিত এক অনন্য সবুজ গ্রামের নাম হলো গিথরন। এটিও বিখ্যাত তার শান্ত,কোলাহলমুক্ত ও নির্মল পরিবেশর জন্য। এই গ্রামের বিশেষ বৈশিষ্ট্য হলো এটি সম্পূর্ণ যানবাহন মুক্ত । এই গ্রামে কোথাও গাড়ি চলতে পারে না যার ফলে কোন ধুল-বালি হয় না। ভাবছেন তাহলে গ্রামের মানুষজনের যাতায়াতের বাহন কি?

গ্রামের মাঝ বরাবর দিয়ে বয়ে গিয়েছে একটি খাল। আর এই খালের সাহায্যে মানুষ নৌকার মাধ্যমে চলাচল করে।

৮। অ্যালবিরোবিলো (ইতালি) 

প্রাচীনত্ব আর মনোরম সৌন্দর্যের জন্য এরইমধ্যে ইউনেস্কো অ্যালবিরোবিলোকে বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ হিসেবে ঘোষণা করেছে। এই গ্রামের নির্মল ও শান্ত পরিবেশ ও হাসিখুশি মানুষগুলো যে কাউকে নিমিষেই আকর্ষণ করতে বাধ্য। এই গ্রামের বৈশিষ্ট হলো, এতে রয়েছে প্রাচীন পোড়া মাটির তৈরি ইট আর চুনাপাথর দিয়ে বানানো ১৫’শ লম্বাটে গম্বুজওয়ালা বাড়ি। দূর থেকে সাদা রঙের এসব গম্বুজওয়ালা বাড়ি দেখতে খুবই চমৎকার। 

বিস্তারিত জানতে নিচের ভিডিও টি দেখুন আশা করি ভালো লাগবেঃ 

No comments

Powered by Blogger.